ঢাকা,  মঙ্গলবার
১৬ এপ্রিল ২০২৪

The Daily Messenger

বেইলি রোডের অগ্নিকাণ্ড :

কাচ্চি ভাইয়ের ম্যানেজারসহ আটক ৩

মেসেঞ্জার অনলাইন

প্রকাশিত: ২১:০১, ১ মার্চ ২০২৪

আপডেট: ২১:০৪, ১ মার্চ ২০২৪

কাচ্চি ভাইয়ের ম্যানেজারসহ আটক ৩

সংবাদ সম্মেলনে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) অতিরিক্ত কমিশনার খ. মহিদ উদ্দিন। ছবি: সংগৃহীত

রাজধানীর বেইলি রোডের ভবনে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় কাচ্চি ভাই রেস্তোরাঁর ম্যানেজারসহ তিনজনকে আটক করা হয়েছে। শুক্রবার (১ মার্চ) তাদের আটক করা হয় বলে জানিয়েছে পুলিশ।

আটক তিনজন হলেন ওই ভবনে ‘চুমুক’ নামের একটি খাবার দোকানের দুই মালিক আনোয়ারুল হক ও শফিকুর রহমান এবং ‘কাচ্চি ভাই’ রেস্তোরাঁর ম্যানেজার জয়নুদ্দিন জিসান।

ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) অতিরিক্ত কমিশনার খ. মহিদ উদ্দিন শুক্রবার সন্ধ্যায় ডিএমপির মিডিয়া সেন্টারে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা জানান।

মহিদ উদ্দিন বলেন, ভবনের নিচতলার খাবার দোকান থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে। আগুনের ঘটনায় অবহেলা জনিত কারণে মৃত্যু অভিযোগে পুলিশ বাদী হয়ে একটি মামলা করবে। ভুক্তভোগী পরিবারের কেউ মামলা করতে চাইলে মামলা করতে পারবেন। এই ঘটনায় ইতিমধ্যে তিনজনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

এই অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় ভবনের মালিকের দায়িত্বের কোনো অবহেলা রয়েছে কিনা সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে মহিদ উদ্দিন বলেন, ভবনের মালিক থেকে শুরু করে এই ঘটনায় যাদের দায় পাওয়া যাবে, তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

গতকালের আগুনের ঘটনায় এখন পর্যন্ত ৪৬ জনের মৃত্যু হয়েছে উল্লেখ করে পুলিশ কর্মকর্তা মহিদ উদ্দিন বলেন, তাদের মধ্যে ১৮ জন নারী ও আটজন শিশু আছে। এর মধ্যে ৪০ জনের পরিচয় শনাক্ত করা গেছে। তিনি জানান, ৩৮ জনের মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। দুটি মরদেহ মর্গের ফ্রিজে রাখা হয়েছে। অন্য ছয়টি মরদেহে পরিচয় নিশ্চিত হতে ডিএনএ পরীক্ষা করা হবে।

বেইলি রোডের ‘গ্রিন কজি কটেজ’ নামের আটতলা ওই ভবনটিতে গতকাল বৃহস্পতিবার রাত পৌনে ১০টার দিকে আগুন লাগে। এতে ৪৬ জন মারা যান। ১২ জনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তারা শঙ্কামুক্ত নন বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী সামন্ত লাল সেন। ভবন থেকে ৭০ জনকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে।

মেসেঞ্জার/হাওলাদার

dwl
×
Nagad