ঢাকা,  বৃহস্পতিবার
১৮ জুলাই ২০২৪

The Daily Messenger

পাঁচ কার্যদিবস পর শেয়ারবাজারে মূল্য সূচকের পতন

মেসেঞ্জার অনলাইন

প্রকাশিত: ১৮:৪২, ২৪ জুন ২০২৪

পাঁচ কার্যদিবস পর শেয়ারবাজারে মূল্য সূচকের পতন

ছবি : সংগৃহীত

টানা পাঁচ কার্যদিবস ঊর্ধ্বমুখী থাকার পর সোমবার (২৪ জুন) দেশের শেয়ারবাজারে মূল্য সূচকের পতন হয়েছে। প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) এবং অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) অধিকাংশ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ইউনিটের দাম কমার পাশাপাশি কমেছে সবকটি মূল্যসূচক।

সেই সঙ্গে ডিএসইতে কমেছে লেনদেনের পরিমাণ। ঈদের আগে দুই কার্যদিবস এবং ঈদের পর তিন কার্যদিবস মূল্যসূচক বাড়ে। অর্থাৎ টানা পাঁচ কার্যদিবস সূচক বাড়ে। সেই সঙ্গে ডিএসইতে ৩০০ কোটি টাকার নিচে নেমে যাওয়া লেনদেন প্রায় ৫০০ কোটি টাকার কাছাকাছি চলে আসে

পরিস্থিতিতে সোমবার শেয়ারবাজারে লেনদেন শুরু হয় বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ইউনিটের দাম কমার মাধ্যমে। ফলে লেনদেনের শুরুতে সূচক ঋণাত্মক হয়ে পড়ে। লেনদেনের শুরুতে দেখা দেওয়া নিম্নমুখী প্রবণতা লেনদেনের শেষ পর্যন্ত অব্যাহত থাকে।

এতে দিনের লেনদেন শেষে ডিএসইতে দাম বাড়ার তালিকায় নাম লিখিয়েছে ৯২টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ইউনিট। বিপরীতে দাম কমেছে ২৫৫টি প্রতিষ্ঠানের। আর ৪৮টির দাম অপরিবর্তিত রয়েছে। ফলে ডিএসইর প্রধান মূল্যসূচক ডিএসইএক্স ২৬ পয়েন্ট কমে পাঁচ হাজার ২২০ পয়েন্টে নেমে গেছে।

অপর দুই সূচকের মধ্যে ডিএসই শরিয়াহ সূচক আগের দিনের তুলনায় তিন পয়েন্ট কমে এক হাজার ১৪২ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে।

আর বাছাই করা ভালো ৩০টি কোম্পানি নিয়ে গঠিত ডিএসই-৩০ সূচক আগের দিনের তুলনায় নয় পয়েন্ট কমে এক হাজার ৮৬৭ পয়েন্টে অবস্থান করছে।

সবকটি মূল্যসূচক কমার পাশাপাশি লেনদেনের গতিও কমেছে। দিনভর বাজারটিতে লেনদেন হয়েছে ৪৭৯ কোটি ৮৬ লাখ টাকা। আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয় ৪৮৬ কোটি ৭৪ লাখ টাকা। সে হিসাবে লেনদেন কমেছে ছয় কোটি ৮৮ লাখ টাকা।

টাকার অঙ্কে সব থেকে বেশি লেনদেন হয়েছে লিন্ডে বাংলাদেশের শেয়ার। কোম্পানিটির ২৩ কোটি ১৬ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে।

দ্বিতীয় স্থানে থাকা সি পার্ল বিচ রিসোর্টের ১৩ কোটি ৬৪ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। ১১ কোটি ৭৩ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেনের মাধ্যমে তৃতীয় স্থানে রয়েছে ক্যাপটিক গ্রামীণ ব্যাংক গ্রোথ ফান্ড।

এছাড়া ডিএসইতে লেনদেনের দিক থেকে শীর্ষ ১০ প্রতিষ্ঠানের তালিকায় রয়েছে- ব্রিটিশ আমেরিকান টোব্যাকো, রূপালী লাইফ ইন্স্যুরেন্স, বিচ হ্যাচারি, এশিয়াটিক ল্যাবরেটরিস, ইউনিলিভার কনজুমার কেয়ার, লাভেলো আইসক্রিম এবং স্কয়ার ফার্মাসিউটিক্যালস।

অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সার্বিক মূল্যসূচক সিএএসপিআই কমেছে ৯৫ পয়েন্ট। বাজারটিতে লেনদেনে অংশ নেওয়া ২২১টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ৫১টির দাম বেড়েছে।

বিপরীতে দাম কমেছে ১৪৬ টির। ২৪ টির দাম অপরিবর্তিত রয়েছে। লেনদেন হয়েছে ২১ কোটি ১৯ লাখ টাকা। আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয় ১০ কোটি ৯৮ লাখ টাকা।

মেসেঞ্জার/আপেল