ঢাকা,  শনিবার
১৫ জুন ২০২৪

The Daily Messenger

অস্ট্রেলিয়ায় কোরআন প্রতিযোগিতায় প্রথম হলেন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ফারহান

মেসেঞ্জার অনলাইন

প্রকাশিত: ১৭:৩২, ২০ মে ২০২৪

আপডেট: ১৭:৪৪, ২০ মে ২০২৪

অস্ট্রেলিয়ায় কোরআন প্রতিযোগিতায় প্রথম হলেন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ফারহান

ছবি: সংগৃহীত

অস্ট্রেলিয়ার সিডনিতে আয়োজিত দ্বিতীয় বার্ষিক জাতীয় কোরআন প্রতিযোগিতায় প্রথম স্থান অধিকার করেছে বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ওয়েস্টার্ন অস্ট্রেলিয়ার কিশোর ফারহান জাহিন। গত শনিবার (১৮ মে) সিডনির ব্যাংকসটাউনের ব্রায়ান ব্রাউন থিয়েটারে আল তাজকিরাহ ইনস্টিটিউটের উদ্যোগে দিনব্যাপী এ কোরআন প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়।

প্রতিযোগিতায় প্রথম হয়ে তিন হাজার ডলারসহ ন্যাশনাল চ্যাম্পিয়ন অ্যাওয়ার্ড জিতে নিয়েছে ফারহান জাহিন। প্রতিযোগিতায় দ্বিতীয় হয়েছেন ভিক্টোরিয়া স্টেটের হাফসা বতুল ও তৃতীয় হয়েছেন সালমান মোহাম্মদ।

সেদিন অস্ট্রেলিয়ার ছয়টি রাজ্য থেকে আগত বিপুল সংখ্যক স্কুলশিক্ষার্থী প্রতিযোগীদের মধ্যে তীব্র প্রতিযোগিতার পর বিকেলে পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানও হয়েছে।

প্রবাসী মুসলিমদের সামাজিক সংগঠন ইসলামিক প্র্যাকটিস অ্যান্ড দাওয়াহ সার্কেল (আইপিডিসি) এর অধীনস্থ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান আল তাজকিরাহ ইনস্টিটিউট চলতি বছরের পবিত্র রমজান মাসে দ্বিতীয়বারের মতো পুরো অস্ট্রেলিয়া জুড়ে শিশু-কিশোরদের জন্য কোরআন তেলাওয়াত প্রতিযোগিতার আয়োজন করে।

২০২৪ সালে দ্বিতীয় কোরআন তেলাওয়াত প্রতিযোগিতায় বয়সভিত্তিক বিভিন্ন গ্রুপে প্রায় দুই হাজার প্রতিযোগী অংশ নেয়। একই প্রতিযোগিতায় দুই পারা কোরআন মুখস্ত করায় অংশ নেয় ৩৫০ জনেরও বেশি প্রতিযোগী।

রমজান মাসে সারা অস্ট্রেলিয়ায় প্রায় ৫০টি ইসলামিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও ৩০টি মসজিদ এ প্রতিযোগিতায় যুক্ত ছিল। পুরো প্রতিযোগিতা কর্মসূচিতে বিচারক ও আয়োজক হিসেবে ছিলেন ৭০ জনেরও বেশি ধর্মীয় ব্যক্তিত্ব এবং ইমাম।

প্রতিটি রাজ্য থেকে তাজবীদসহ পবিত্র কোরআন শরীফের দুই পারা মুখস্ত তেলাওয়াতের প্রতিযোগিতায় বিজয়ী তিনজনকে জাতীয় কোরআন তেলাওয়াত প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের সুযোগ দেওয়া হয়।

আল তাজকিরাহ ইনস্টিটিউটের অ্যাসিস্ট্যান্ট কোঅর্ডিনেটর শায়খ আবদুল রহমানের উপস্থাপনায় শনিবার সকাল ৯টায় শুরু হওয়া এ প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠানের শুরুতে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন আইপিডিসির সেন্ট্রাল প্রেসিডেন্ট ড. রফিকুল ইসলাম।

সেন্ট মেরিস মসজিদের ইমাম শায়খ আবু হোরায়রা শুরুতে প্রতিযোগিতার নিয়মাবলী ও বিচারকদেরকে পরিচয় করিয়ে দেন। পরে প্রতিযোগিতার মূল পর্ব শুরু হয়।

দুপুরে মধ্যাহ্ন বিরতির পর পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অস্ট্রেলিয়ার গ্র্যান্ড মুফতি ড. ইবরাহিম আবু মোহাম্মদ, ন্যাশনাল ইমাম কাউন্সিলের প্রেসিডেন্ট শায়খ শাদী আল সুলাইমান, আইপিডিসির সেন্ট্রাল প্রেসিডেন্ট ড. রফিকুল ইসলাম, প্রধান বিচারক শায়খ তারিক আল বিক্বায়ী, স্পন্সর প্রতিষ্ঠান রহিম-আজিজ ফাউন্ডেশনের কর্ণধার আরিফুর রহমান এবং ক্যাম্পবেলটাউন সিটি কাউন্সিলের ডেপুটি মেয়র ইব্রাহিম খলিল মাসুদ।

এ বছরের জাতীয় কোরআন তেলাওয়াত প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারী সব প্রতিযোগীকে শুভেচ্ছা পুরস্কার দেওয়া হয়েছে হয়।

মেসেঞ্জার/হাওলাদার

Advertisement