ঢাকা,  বুধবার
২৯ মে ২০২৪

The Daily Messenger

অভিবাসী ও সোনার মানুষ সম্মিলন ২০২৩ 

‘অভিবাসী হওয়ার প্রবণতাকে ব্যবহার করে লাভবান হচ্ছে অনেক দেশ’

স্টাফ রিপোর্টার 

প্রকাশিত: ২১:০০, ৩০ মার্চ ২০২৩

‘অভিবাসী হওয়ার প্রবণতাকে ব্যবহার করে লাভবান হচ্ছে অনেক দেশ’

পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম বলেছেন, আমরা নিয়মিত অভিবাসনকে গুরুত্ব দেই। কিন্তু আমরা গন্তব্য দেশগুলোতে নানা অসঙ্গতি দেখতে পাই। পৃথিবীতে অনেক দেশ আছে যারা আমাদের অভিবাসী হওয়ার সহজাত যে প্রবণতা, সেটিকে ব্যবহার করে লাভবান হচ্ছে । বড় বড় ফোরামে তারা যে প্রতিশ্রুতি রাখেন , সেগুলো তারা নিজেদের দেশে রাখতে পারছেন না।

বৃহস্পতিবার (৩০ মার্চ) রাজধানীর আগারগাঁও মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘরে রিফিউজি অ্যান্ড মাইগ্রেটরি মুভমেন্ট রিসার্চ ইউনিট (রামরু) আয়োজিত অভিবাসন ও সোনার মানুষ সম্মিলন ২০২৩-এ তিনি এসব কথা বলেন। 

শাহরিয়ার আলম বলেন, আমাদের অভিবাসী কর্মীরা আমাদের দেশ ছাড়াও যে দেশে বসবাস করছেন সে দেশের অর্থনীতিতে অবদান রাখছেন। আমার একটি পর্যবেক্ষণ হচ্ছে যেটা আমি সবসময় দাবি করে যে, আমাদের জনশক্তি মধ্যপ্রাচ্যকে দাড় করিয়েছে। আমাদের অভিবাসী পশ্চিমাদেশগুলোতে যারা আছেন তারা অর্থনীতিকে টিকিয়ে রেখেছেন। 

তিনি আরও বলেন, আমরা দেখতে পাচ্ছি যে অভ্যন্তরীণ চাপে পড়ে বিভিন্ন রাষ্ট্র আমাদের উপরে অন্যায্য অনেক কিছু চাপিয়ে দিচ্ছে। এই জায়গা থেকে আমাদের ফিরে আসতে হবে। এজন্য আমরা জাতিসংঘের জোরালো ভূমিকা চাই। 
প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমদ বলেন, অভিবাসী কর্মীরা যা করছেন তার জন্য সবসময় স্বীকৃতি দেওয়ার প্রয়োজন আছে। সবসময় আর্থিকভাবে লাভবান না করতে পারলেও সিস্টেম কিন্তু সবকিছু করে দেয়। এই খাতের উন্নয়নে আমার জিহাদি মানসিকতা আছে তবে আমার সক্ষমতা কম। 

অভিবাসন ও সোনার মানুষ সম্মিলনে ৩ জন প্রবাসীকে সোনার মানুষ সম্মাননা , দুইজন প্রবাসীর পরিবারকে সোনার মানুষ পরিবার সম্মাননা,  ওয়েজ আর্নারস কল্যাণ বোর্ডকে সোনার মানুষ বিশেষ সেবা পুরস্কার , হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের প্রবাসী কল্যাণ ডেস্কের সহকারী পরিচালক মোঃ ফখরুল আলমকে  এবং টাঙ্গাইলের গ্রিভেন্স ম্যানেজমেন্ট কমিটিকে সোনার মানুষ সেবা পুরস্কার দেওয়া হয়।

সোনার মানুষ সম্মাননা প্রাপ্ত তিন প্রবাসী হচ্ছেন টাঙ্গাইলের মোঃ নাজমুল তালুকদার, কুমিল্লার নুরুদ্দিন আহমেদ এবং কেরানীগঞ্জের মোঃ সলিমুল্লাহ। সোনার মানুষ পরিবার সম্মাননা পাওয়া দুইজন হচ্ছেন,  টাঙ্গাইলের প্রবাসী কর্মীর স্ত্রী উম্মে হাবিবা এবং ময়মনসিংহের শিউলি ইসলাম। অনুষ্ঠানে রামরুর প্রতিষ্ঠাতা চেয়ার ড তাসনিম সিদ্দিকী সম্মিলনের উদ্দেশ্য উপস্থিত অতিথিদের সামনে তুলে ধরেন। 

সম্মিলনে সম্মাননা ছাড়াও অভিবাসন খাতের সমস্যা ও চ্যালেঞ্জগুলো নিয়ে আলোচনা করা হয়। পাশাপাশি অভিবাসন খাত নিয়ে সংসদীয় বিতর্কের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী শামসুল আলম, জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান ড. কামাল উদ্দিন আহমেদ, বিএমইটি মহাপরিচালক শহীদুল আলম প্রমুখ। এর আগে সকালে সম্মিলনের উদ্বোধন করেন সাবেক সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী এবং মুক্তিযোদ্ধা জাদুঘরের ট্রাস্টি আসাদুজ্জামান নূর।

টিডিএম/এসএনই

Advertisement