ঢাকা,  মঙ্গলবার
১৬ এপ্রিল ২০২৪

The Daily Messenger

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মাথায় ছাতা ধরলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা!

পিরোজপুর প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ২১:৫৩, ২৩ জুন ২০২৩

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মাথায় ছাতা ধরলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা!

ছবি : টিডিএম

পিরোজপুরের কাউখালীতে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের মাথায় ছাতা ধরলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা গত বুধবার দুপুরে ঘটনা ঘটলে উপজেলা জেলাজুড়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে নিয়ে ব্যাপক সমালোচনার সৃষ্টি হয়।

জানা যায়, বুধবার কাউখালী উপজেলা নির্বাহী অফিসার মেহের নিগার সুলতানা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্সের সামনের রাস্তার নির্মানের কাজ পরিদর্শনে যান। সময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা আলী হোসেন, সদর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুর রহমান।

সময় উপস্থিত সবার সামনেই উপজেলা নির্বাহী অফিসারের মেহের নিগার সুলতানা মাথায় ছাতা ধরা ছিলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা মোশারফ হোসেন শুকুর। পরে ছবি সদর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুর রহমান ফেসবুকে পোষ্ট দিলে তা মুহূর্তেই ভাইরাল হয়ে যায়।

তবে, চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুর রহমান ওই ছবি পরে ডিলিট করে দেন। কিন্তু তার আগে অনেকেই ছবিটি শেয়ার স্কীনশর্ট দিয়ে পুনরায় ফেসবুকে আপলোড করে দেয়।

বিষয়ে মুক্তিযোদ্ধা মোশারফ হোসেন শুকুর বলেন, ইউএনও ম্যাডামের ড্রাইভার আমার হাতে ছাতাটা দিয়ে বলেন চাচা ধরেন। আমি তা ধরে রেখেছি। সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যানের সাথে আমার দ্বন্দ্ব আছে তাই তিনি ওই ছবি তুলে ফেসবুকে দিয়েছে।

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী সাবেক ডেপুটি কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা আলী হোসেন বলেন, ইউএনও সাহেব রাস্তা নির্মানের কাজ দেখতে গেলে আমরা তার সাথে ছিলাম। শুকুর ছাতা ধরা কিনা তা আমি খেয়াল করিনি।

বিষয়ে ইউপি চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, ইউএনও মহোদয় রাস্তার কাজ দেখতে গিয়েছেন, সেখানে আমরাও ছিলাম। সেই ছবি ফেসবুকেই দিয়েছি। আমার সাথে বীর মুক্তিযোদ্ধার কোন বিরোধ নাই

বিষয়ে কাউখালী উপজেলা নির্বাহী অফিসার মেহের নিগার সুলতানার সাথে কথা বললে তিনি বলেন, প্রচন্ড রোদের মধ্যে আমার ড্রাইভার ছাতা ধরা ছিল। কখন তিনি (বীর মুক্তিযোদ্ধা) ছাতাটি হাতে নিয়েছেন তা আমি খেয়াল করতে পারিনি। ঘটনাটি অসচেতনভাবেই ঘটেছে।

টিডিএম/এএম

dwl
×
Nagad