ঢাকা,  সোমবার
০৪ মার্চ ২০২৪

The Daily Messenger

শিরোনাম:

* মানুষের দোরগোড়ায় স্মার্ট ডাক সেবা পৌঁছে দিতে সরকার বদ্ধপরিকর : পলক * কৌশলে কখনো কখনো পিছু হটতে হয় : ফারুক * নাটোরে অ্যাম্বুলেন্সে মিললো গাঁজা ফেনসিডিল * বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রীর সাথে ভারতের হাইকমিশনারের সৌজন্য সাক্ষাৎ * চট্টগ্রামে সুগার মিলে আগুন, নিয়ন্ত্রণে ২০ ইউনিট * পাকিস্তানে প্রবল বৃষ্টি ও তুষারপাতে ২৭ জনের মৃত্যু * ধানমন্ডির টুইন পিক টাওয়ারের ১২ রেস্তোরাঁ সিলগালা * অগ্নিকাণ্ডের ঝুঁকিপূর্ণ ভবনে সাইনবোর্ড টানানোর নির্দেশ হাইকোর্টের * দেশের অর্থনীতি নিয়ে মিথ্যা প্রোপাগান্ডা ছড়ানো হচ্ছে : অর্থমন্ত্রী * মালয়েশিয়ায় ট্রেনের ধাক্কায় নিহত ৩ বাংলাদেশি * আফ্রিকার বুরকিনা ফাসোতে হামলা, নিহত ১৭০ * ইভ্যালির রাসেল-শামীমার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা * ২০৪১ সালের মধ্যে বিজিবি হবে বিশ্বমানের স্মার্ট সীমান্ত বাহিনী : প্রধানমন্ত্রী * বেইলি রোডে আগুন : উচ্চ পর্যায়ের কমিটি গঠন হাইকোর্টের

আখাউড়ায় আওয়ামী লীগ সভাপতির ওপর হামলায় পৌর কাউন্সিলর আটক

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ১৫:৪৮, ৭ ডিসেম্বর ২০২৩

আখাউড়ায় আওয়ামী লীগ সভাপতির ওপর হামলায় পৌর কাউন্সিলর আটক

ছবি : মেসেঞ্জার

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ায় কাউন্সিলরের নেতৃত্বে পূর্ব শত্রুতার জেরে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি তার স্ত্রীকে মারধরসহ বাড়িঘরে হামলা চালিয়েছে।

বুধবার ( ডিসেম্বর) বিকেল চারটার পরে পৌর শহরের সড়ক বাজারে ঘটনা ঘটে। ঘটনায় পৌর কাউন্সিলর ইব্রাহিম মিয়া সুজনকে গ্রেপ্তার করেছে থানা পুলিশ।

হামলায় আহত উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোহাম্মদ আলী চৌধুরী পৌর এলাকার রাধানগর গ্রামের বাসিন্দা। তিনি আইনমন্ত্রী আনিসুল হকের একজন ঘনিষ্টজন বলে পরিচিত। আখাউড়া পৌর এলাকা বনিক পাড়ার বাসিন্দা পৌরসভার ৬ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ইব্রাহীম মিয়া ওরফে সুজন তার ভাই লোকজন নিয়ে পূর্ব শত্রুতার জেরে আওয়ামী লীগ নেতার উপর হামলা চালিয়েছেন বলে স্থানীয়রা জানিয়েছেন। বিকেলেই তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী কয়েকজনের সাথে কথা বললে তিনি বলেন, বুধবার বিকেল চারটার দিকে সড়ক বাজারের দরদী ফার্মেসীর সামনে একটি চেয়ারে বসাছিল উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোহাম্মদ আলী চৌধুরী। সেই সময় একটি ছেলে সেখানে এসে আওয়ামী লীগ নেতার সঙ্গে তর্কে জরিয়ে পরেন।

এরই মাঝে কাউন্সিলর ইব্রাহীম মিয়া সুজন তার ভাইসহ দলবল নিয়ে সেখানে এসে আওয়ামী লীগ নেতাকে পাঞ্জাবির কলার ধরে সড়কের মাঝখানে নিয়ে যান। সেখানে কাউন্সিলর, তার ভাই তাদের লোকজন রাস্তায় ফেলে মারধর করেন। পরে স্থানীয়রা এগিয়ে গিয়ে কাউন্সিলর তার লোকজনকে ফিরিয়ে দেন। পরে আওয়ামী লীগ নেতাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান।

আওয়ামী লীগ নেতার স্ত্রী উষা বেগম (৬২) জানান, বুধবার বিকেলে কাউন্সিলরসহ -৫ জন লোকজন বাড়িতে ফটকে আঘাত করতে থাকেন। ফটক খুলতেই তারা ভেতরে ঢুকে ভাঙচুর করে এবং তার স্বামীকে খোঁজ করেন। না পেয়ে উষা বেগমের পিঠে পায়ে লাঠি দিয়ে আঘাত করেন তারা। আখাউড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোহাম্মদ আলী চৌধুরী বলেন, আমি অসুস্থ এখন কথা বলতে পারব না।

আখাউড়া উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি শাহাব উদ্দিন বেগ শাপলু বলেন, আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে উপজেলায় নির্বাচনী প্রস্তুতি কমিটি গঠন করে আওয়ামী লীগ। কাউন্সিলর নিজেকে আওয়ামী লীগের কর্মী দাবি করলেও তার বিরুদ্ধে বিএনপির নাশকতার মামলা রয়েছে।

আখাউড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আখাউড়া পৌরসভার মেয়র তাকজিল খলিফা বলেন, আমি ঢাকায় আছি। উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতিকে মারধর করেছে বলে শুনেছি। কেন এমন হয়েছে আমি জানি না।

আখাউড়া থানার (ওসি) মো. আসাদুল ইসলাম বলেন, পৌর শহরের মসজিদপাড়া থেকে কাউন্সিলরকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। একটি নাশকতার মামলায় তিনি এজহারভূক্ত আসামী।

মেসেঞ্জার/এনায়েত/আপেল

×
Islamic Merchant