ঢাকা,  মঙ্গলবার
১৬ এপ্রিল ২০২৪

The Daily Messenger

অসুস্থ মাকে দেখতে যাওয়ার অনুমতি না পাওয়ায় নববধূর আত্মহত্যা!

মাগুরা প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ২০:৫৭, ৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

অসুস্থ মাকে দেখতে যাওয়ার অনুমতি না পাওয়ায় নববধূর আত্মহত্যা!

ছবি : মেসেঞ্জার

মায়ের অসুস্থতার খবর পেয়েও দেখতে যাওয়ার অনুমতি না পাওয়ায় মাগুরার মহম্মদপুরে ফাতেমা নামে এক নববধূ গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেছে বলে খবর পাওয়া গেছে। তবে এটি হত্যাকাণ্ড না আত্মহত্যা সেটি ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন পাওয়ার পর নিশ্চিত হওয়া যাবে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

নিহত ফাতেমা (২০) ঢাকার আমিনবাজার এাকার নবীর হোসেনের মেয়ে। চারমাস আগে ফেসবুকে সম্পর্কের সূত্রে মাগুরার মহম্মদপুর উপজেলার বালিদিয়া ইউনিয়নের যশপুর গ্রামের জিয়াউর সরদারের ছেলে আলি হোসেনের সাথে তার বিয়ে হয়।

প্রতিবেশিরা জানায়, আলি হোসেন প্রায় ১২ বছর আগে কাজের সূত্রে মালয়েশিয়া যায়। সেখানে থাকা অবস্থায় মোবাইল ফোনে যোগাযোগের মাধ্যমে গত বছরের সেপ্টেম্বর মাসে ফাতেমার সাথে মোবাইল ফোনের মাধ্যমেই বিয়ে সম্পন্ন হয়।

বিয়ের এক মাসের মাথায় মেয়েটি নিজ পরিবারের সদস্যদের সাথে নিয়ে মাগুরায় শ্বশুরবাড়িতে এসে ওঠে। সেই থেকে ফাতেমা শ্বশুরবাড়িতেই বসবাস করছিলো। শ্বশুরবাড়ির সকলের সাথে ভালো সম্পর্ক থাকলেও বিয়ের পরও স্বামী আলি হোসেন দেশে ফেরেনি। যা নিয়ে ফাতেমা মানসিক কষ্টের মধ্যে ছিল।

এরই মধ্যে মায়ের অসুস্থতার খবর পেয়ে ঢাকায় যেতে চাইলে শ্বশুরবাড়ি থেকে যাবার অনুমতি না দেওয়ায় ফাতেমা রোববার ১০ টার দিকে ঘরের সিলিং ফ্যানের সঙ্গে ফাঁস নেয়।

ঘটনার পর পরিবারের লোকজন তাকে মহম্মদপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

মহম্মদপুর থানার (ওসি) বোরহান উল ইসলাম জানান, খবর পেয়ে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্ত করা হয়েছে। সংক্রান্ত প্রতিবেদন হাতে পাওয়ার পর মৃত্যু সম্পর্কে নিশ্চিত হওয়া যাবে।

মেসেঞ্জার/বাসার/আপেল

dwl
×
Nagad