ঢাকা,  বৃহস্পতিবার
২৫ এপ্রিল ২০২৪

The Daily Messenger

সাংবাদিকদের ওপর হামলার প্রতিবাদে দৌলতপুরে মানববন্ধন

দৌলতপুর (কুষ্টিয়া) প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ১৭:২৩, ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

সাংবাদিকদের ওপর হামলার প্রতিবাদে দৌলতপুরে মানববন্ধন

ছবি : মেসেঞ্জার

কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে সংবাদ সংগ্রহে গিয়ে সংবাদকর্মী শরীফ বিশ্বাস, এসআই সুমন ও বিদ্যুৎ খন্দকারের ওপর ভয়াবহ হামলার প্রতিবাদে এবং হামলায় জড়িত সকল আসামিদের দ্রুত আটকের দাবিতে দৌলতপুর থানার সামনে দু ঘণ্টাব্যাপী মানববন্ধন করেছেন উপজেলার সাংবাদিকেরা।

দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত কর্মসূচি চলবে বলে জানান অংশগ্রহণকারী সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ। কুষ্টিয়া ও দৌলতপুরে হামলা-মামলার শিকার সকল সাংবাদিকের পক্ষে সুবিচার চেয়ে দাবি তোলা হয় মানববন্ধনে।

সোমবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) সকালে মানববন্ধনে অংশ নেয় দৌলতপুর প্রেসক্লাব, দৌলতপুর রিপোর্টার্স ক্লাব, দৌলতপুর প্রেসক্লাব ডিপিসি, আল্লারদর্গা প্রেসক্লাব এবং দৌলতপুর সাংবাদিক ফোরামের নেতৃবৃন্দ সহ বিভিন্ন পর্যায়ের সংবাদকর্মীরা। এসময় মানববন্ধনে প্রতিবাদ বক্তব্য রাখেন সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ।

তারা বলেন, পুলিশ-প্রশাসনের কাছে জোর দাবি, সাংবাদিকদের ওপর হামলায় যারা জড়িত দ্রুত সকলকে আটক ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিত করা হোক। সাংবাদিকদের সুরক্ষায় প্রশাসনকে এগিয়ে আসারও আহ্বান জানানো হয়।

দৌলতপুর প্রেসক্লাব ডিপিসি সভাপতি আব্দুল আলীম সাচ্চুর সভাপতিত্বে মানববন্ধনে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন দৌলতপুর প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ও এটিএন নিউজের কুষ্টিয়া জেলা প্রতিনিধি শরীফুল ইসলাম, দৌলতপুর রিপোর্টার্স ক্লাবের সভাপতি ও দৈনিক আলোকিত সকালের নিজস্ব প্রতিবেদক আহসানুল হক, সাধারণ সম্পাদক ও বিবার্তা২৪.নেটের প্রতিবেদক আব্দুল্লাহ বিন জোহানী তুহিন, আল্লারদর্গা প্রেসক্লাবের সভাপতি ও বাংলাদেশ বার্তার প্রতিনিধি খন্দকার জালাল উদ্দীন, সাধারণ সম্পাদক ও দৈনিক জনকণ্ঠের দৌলতপুর প্রতিনিধি সাঈদুল আনাম।

আরও বক্তব্য রাখেন, ডিপিসি’র যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক হেলাল উদ্দিন, দৌলতপুর প্রেসক্লাবের অন্যতম সংগঠক আহাদ আলী নয়ন এবং শাহীন রেজা প্রমুখ। এছাড়া আরও উপস্থিত হয় দৌলতপুরের জ্যেষ্ঠ ও তরুণ সাংবাদিকেরা।

মানববন্ধনে সঞ্চালনা করেন দৌলতপুর সাংবাদিক ফোরামের আহ্বায়ক ও মাছরাঙা টেলিভিশনের কুষ্টিয়া জেলা প্রতিনিধি তাশরিক সঞ্চয়।

প্রসঙ্গত, বৃহস্পতিবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার ফিলিপনগর ইউনিয়নের সিরাজনগর গ্রামে কামাল হোসেন নামে এক ব্যক্তি নিজের বাবার নাম গোপন করে মুক্তিযোদ্ধা চাচাকে বাবা বানিয়ে মুক্তিযোদ্ধা সনদ জালিয়াতি করে প্রশাসনের উচ্চপর্যায়ে চাকরি করছেন এমন অভিযোগে অনুসন্ধানী প্রতিবেদন তৈরি করতে গেলে হামলার শিকার হন চ্যানেল টোয়েন্টিফোর ও দৈনিক কালবেলার প্রতিবেদক, সাংবাদিক সংগঠক শরীফ বিশ্বাস, ক্যামেরা পার্সন এসআই সুমন এবং দৈনিক বাংলাদেশ সমাচারের কুষ্টিয়া জেলা প্রতিনিধি খন্দকার বিদ্যুৎ। এ ঘটনায় জেলা জুড়ে নানা আন্দোলন কর্মসূচি করছে সাংবাদিকেরা।

এঘটনায় ওইদিন রাতেই দৌলতপুর থানায় শরীফ বিশ্বাস বাদী হয়ে ছয়জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত ৮ থেকে ১০ জনের নামে মামলা দায়ের করেন। এ মামলায় এখনও পর্যন্ত দুজনকে আটক করেছে পুলিশ।

মেসেঞ্জার/তুহিন/শাহেদ

dwl
×
Nagad