ঢাকা,  শুক্রবার
১৯ এপ্রিল ২০২৪

The Daily Messenger

শিরোনাম:

* বৈধ পথে রেমিট্যান্স প্রেরণে সচেতনতা বৃদ্ধির সুপারিশ সংসদীয় কমিটির * স্বর্ণের দামে আবারও রেকর্ড, ভরিতে বাড়ল ২০৬৫ টাকা * স্বাস্থ্য সুরক্ষা আইন সংসদে পাস করা হবে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী * বিচ্ছিন্নভাবে দে‌শের স্বার্থ অর্জন করার সুযোগ নেই : সেনাপ্রধান * সয়াবিন তেলের দাম বাড়ানোর কারণ জানালেন বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী * ষষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচন : প্রথম ধাপের ভোটে বৈধ প্রার্থী ১৭৮৬ জন * লিটারে ৪ টাকা বাড়ল বোতলজাত সয়াবিন তেলের দাম * বিশ্ববাজারে কমছে স্বর্ণের দাম * চার বিভাগে ঝোড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টির আভাস * ইউক্রেনে রাশিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র হামলা, নিহত ১৭ * সুনামগঞ্জে বাস-অটোরিকশার সংঘর্ষে নিহত ২ * ফ্লাইট বাতিল-বিলম্ব, দুবাই বিমানবন্দরে বিশৃঙ্খলা

মৌলভীবাজারের রাজনগরে পৃথক ঘটনায় নিহত ২

মৌলভীবাজার প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ১৭:৫৪, ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

মৌলভীবাজারের রাজনগরে পৃথক ঘটনায় নিহত ২

ছবি : সংগৃহীত

মৌলভীবাজারের রাজনগরে পৃথক ঘটনায় ভাইয়ের কুড়ালের আঘাতে বড় ভাই মো. হোসেন মিয়া ও পাওনা টাকা নিয়ে দ্বন্দ্বে ছুরিকাঘাতে ছোয়াব আলী (৪০) নামে এক সিএনজি অটোরিক্সা চালকসহ ২ জন খুন হয়েছেন। 

সোমবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে উপজেলার উত্তরভাগ ইউনিয়নের হায়পুর গ্রামে ও রোববার (২৫ ফেব্রুয়ারি) পবিত্র শবে বরাতের রাত সাড়ে আটটার দিকে উপজেলার মুন্সিবাজারের উত্তরবাজার সিএনজি স্ট্যান্ডের সামনে এ ঘটনা দুটি ঘটে। সিএনজি চালক হত্যাকান্ডের ঘটনায় জড়িত দুইজনকে রাতেই পুলিশ আটক করেছে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার উত্তরভাগ ইউনিয়নের হায়পুর গ্রামের আব্দুর রব মিয়ার ছেলে মো. হোসেন মিয়াকে (৩০) নিজ ঘরে 

সকাল ৯টার সময় তারই ছোট ভাই কলেজ ছাত্র আবুল হোসেন মুকিত কুড়াল দিয়ে মাথায় আঘাত করে। এতে সে গুরুতর আহত হলে তাকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় দুুপরে সে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ে। কি কারণে তাকে হত্যা করলো এ নিয়ে পরিবারের কেউ মুখ খোলতে রাজি হচ্ছে না। তবে একটি সূত্রে জানা গেছে, নারী ঘটিত কারণেই উভয়ের মধ্যে বিরোধ চলছিল। এ কারনেই তাকে হয়তো আঘাত করে হত্যা করেছে।

এদিকে রাজনগরের মুন্সিবাজার ইউনিয়নের গয়াসপুর গ্রামের নোয়াব আলীর ছেলে সিএনজি অটোরিকশা চালক ছোয়াব আলীর (৪০) সাথে পাওনা টাকা নিয়ে একই ইউনিয়নের সোনাটিকি গ্রামের সাবেক ইউপি সদস্য সৈয়দ মনাফ আলীর ছেলে সৈয়দ কাশিম আলী (৩২) ও সৈয়দ কোহিনুর আলীর (২৭) বেশ কিছুদিন ধরে দ্বন্দ্ব চলছিল। রোববার রাতে মসজিদের জন্য শিরনী কিনতে মুন্সিবাজারে যান ছোয়াব আলীর ছেলে হৃদয় (২০)। এসময় উত্তরবাজার সিএনজি স্ট্যান্ড।

এলাকায় তাকে মারধর করে কোহিনুর, কাশেমসহ আরো কয়েকজন। খবর পেয়ে হৃদয়ের বাবা ও চাচারা ঘটনাস্থলে যান। বিষয়টি নিয়ে কথাকাটাকাটির এক পর্যায়ে ধারালো ছুরি দিয়ে ছোয়াব আলীর শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাত করে কোহিনুর ও কাশিমসহ তাদের সঙ্গীরা। পরে স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে প্রথমে রাজনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হয়। অবস্থা আশঙ্কাজনক হলে তাকে মৌলভীবাজার ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এদিকে ঘটনার খবর পেয়ে রাজনগর থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়। প্রত্যক্ষদর্শীদের তথ্যের ভিত্তিতে হত্যাকান্ডের মূলহোতা কোহিনুর ও কাশিমকে রাতেই আটক করা হয়।
 

মেসেঞ্জার/মিল্লাদ/শাহেদ

dwl
×
Nagad