ঢাকা,  বৃহস্পতিবার
২৫ এপ্রিল ২০২৪

The Daily Messenger

মাগুরা সিভিল সার্জন অফিসে নিয়োগ জালিয়াতির ঘটনায় গ্রেপ্তার ৪

মাগুরা প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ১৮:০০, ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

মাগুরা সিভিল সার্জন অফিসে নিয়োগ জালিয়াতির ঘটনায় গ্রেপ্তার ৪

ছবি : মেসেঞ্জার

মাগুরা সিভিল সার্জনের কার্যালয়ে জনবল নিয়োগের লিখিত পরীক্ষাতে জালিয়াতির ঘটনায় জড়িত চারজনকে আসামী করে সোমবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) সদর থানায় মামলা দায়ের করে। পুলিশ ইতোমধ্যে তাদেরকে গ্রেপ্তারের পর আদালতে সোপর্দ করেছে।

মামলায় অভিযুক্ত ওই চারজন হচ্ছে, মাগুরার মহম্মদপুর উপজেলার লক্ষ্মীপুর গ্রামের এসকে নুরুজ্জামানের ছেলে এসকে মনিরুজ্জামান, একই উপজেলার মন্ডলগাতি গ্রামের আলাউদ্দিন মন্ডলের ছেলে শরিফুল ইসলাম, নাগড়া গ্রামের জামাল মুন্সির ছেলে সজিব হোসাইন এবং সদর উপজেলার আমুড়িয়া গ্রামের ওয়াহাব আলির ছেলে মিরাজ হোসেন।

২৩ ফেব্রুয়ারি মাগুরা সিভিল সার্জনের কার্যালয়ের নিয়ন্ত্রণাধীন বিভিন্ন স্বাস্থ্য প্রতিষ্ঠানসমূহে রাজস্ব খাতের আওতায় ১১-১৭ গ্রেডভূক্ত মোট ৬ টি পদের বিপরীতে ৭১ জন নিয়োগের জন্যে লিখিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়।

অভিযুক্তরা স্বাস্থ্য সহকারী পদে আবেদন করলেও মোটা অংকের অর্থের বিনিময়ে লিখিত পরীক্ষায় প্রক্সি প্রার্থী নিয়োগ করে। পরীক্ষার পরদিন রাতে প্রকাশিত ফলাফলে উত্তীর্ণের তালিকাতে তাদের নাম প্রকাশিত হলে রোববারের মৌখিক পরীক্ষায় তারা স্বশরীরে অংশ নিতে যায়। সময় তাদেরকে আটকের পর সন্ধ্যায় পুলিশে সোপর্দ করা হয়।

সোমবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) মাগুরা সিভিল সার্জনের কার্যালয়ের হিসাবরক্ষক আবুল কালাম আজাদ বাদি হয়ে ওই চার চাকরিপ্রার্থীকে আসামী করে সদর থানায় পাবলিক পরীক্ষা নিয়ন্ত্রণ আইনে একটি মামলা দায়ের করেন।

মামলাটির তদন্তকারী কর্মকর্তা মাগুরা সদর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) পিয়ার উদ্দিন বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাবাবাদে আসামীদের কাছ থেকে একজন প্রক্সি পরীক্ষার্থীর নাম জানা গেছে। নিয়োগ পরীক্ষায় বিশেষ কোনো চক্র কাজ করেছে কিনা সেটি খতিয়ে দেখার পাশাপাশি ঘটনায় জড়িত অন্যান্যদের নাম উদ্ধারের চেষ্টা চলছে।

মেসেঞ্জার/বাসার/আপেল

dwl
×
Nagad