ঢাকা,  শনিবার
১৫ জুন ২০২৪

The Daily Messenger

আশুলিয়ায় উন্মুক্ত কবরস্থানের উদ্বোধন

সাভার (ঢাকা) প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ২২:২২, ৭ মে ২০২৪

আশুলিয়ায় উন্মুক্ত কবরস্থানের উদ্বোধন

ছবি : মেসেঞ্জার

ঢাকার আশুলিয়ায় মাত্র ৫ টাকার বিনিময়ে শ্রমজীবীসহ সাধারণ মানুষের জন্য 'মাকবারায়ে জাফর ইবনে আবি তালেব (রা:) গুমাইল উন্মুক্ত' কবরস্থানের উদ্বোধন করা হয়েছে। মঙ্গলবার (৭ মে) দুপুরে আশুলিয়ার ইয়ারপুর ইউনিয়নের উত্তর গুমাইল এলাকায় এই কবরস্থানের উদ্বোধন করা হয়।

কবরস্থানটির উদ্বোধন করেন ঢাকা-১৯ (সাভার-আশুলিয়া) আসনের সংসদ সদস্য মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম। এ সময় উপস্থিত ছিলেন ইয়ারপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. সুমন আহম্মেদ ভূঁইয়াসহ এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।

এই কবরস্থানের জন্য প্রায় ১৭ শতাংশ জমি দান করেন ঢাকা জেলার আশুলিয়া থানার গুমাইল গ্রামের মরহুম জয়নাল উদ্দীন সরকারের ছেলে মো. হাশেম সরকার।

জমিদাতা হাশেম সরকার বলেন, আশুলিয়া একটি শিল্প অধ্যুষিত এলাকা। আমাদের এলাকায় চাকরি করার সুবাদে দেশের বিভিন্ন জেলার মানুষ এখানে বসবাস করেন।

যার অধিকাংশই স্থানীয় বিভিন্ন পোশাক কারখানায় চাকরি করেন। যেহেতু মানুষ মরণশীল, তাই মৃত্যুর স্বাদ সবাইকে নিতে হবে।

যারা দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে কাজের সন্ধানে এখানে বসবাস করছেন, তারা মারা গেলে অনেক সময় লাশ তাদের গ্রামে পাঠাতে নানা সমস্যার সৃষ্টি হয়।

অনেক লাশ দেরির কারণে নষ্ট হওয়ার সম্ভাবনা দেখা দেয়। তখন তাদের লাশ কবর দিতে গেলে বিভিন্ন জায়গায় যেতে হয়। এলাকার ব্যক্তিগত কবরস্থানে বাহিরের এই লোকদের লাশ কবর দিতে গিয়েও বাধার সম্মুখীন হতে হয়।

মৃত্যুর পরে লাশ নিয়ে ঘুরাঘুরি অত্যন্ত দুঃখজনক। সেদিক বিবেচনায় রেখেই তৈরি করা হলো এই কবর স্থান। এছাড়া আমাদের কবরস্থানে যেকোনো পেশার মানুষ মাত্র পাঁচ টাকার বিনিময়ে লাশ দাফন দিতে পারবেন।

তিনি আরো বলেন, শ্রমজীবী-পেশাজীবী মানুষ যারা এই এলাকায় থাকেন, তাদের যে কেউ যেন মৃত্যুর পরে তাদের শেষ ঠিকানায় সুন্দরভাবে সমাহিত হতে পারেন।

এজন্য চিন্তা-ভাবনা করেই আমি ১৭ শতাংশ জমি এই কবরস্থানের জন্য দান করেছি। আসুন আমরা সবাই মাদককে না বলি, সামাজিক সচেতনতা বৃদ্ধি করি। সকলে আমার জন্য দোয়া করবেন। 

মেসেঞ্জার/নোমান/তারেক

Advertisement