ঢাকা,  বৃহস্পতিবার
১৮ জুলাই ২০২৪

The Daily Messenger

বগুড়ায় ভিজিএফের চাল কেনাবেচার নিয়ে দুই গ্রুপে সংঘর্ষ, আহত ৬

বগুড়া ব্যুরো

প্রকাশিত: ২০:১২, ১৭ জুন ২০২৪

বগুড়ায় ভিজিএফের চাল কেনাবেচার নিয়ে দুই গ্রুপে সংঘর্ষ, আহত ৬

ছবি: সংগৃহীত

বগুড়ার শেরপুরে কালোবাজির মাধ্যমে ভিজিএফের চাল কেনাবেচার ভাগ-বাটোয়ারা নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে তুমুল সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। একপর্যায়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন করা হয়। সংঘর্ষে উভয়পক্ষের অন্তত ৬ জন আহত হয়েছেন।

এরমধ্যে গুরুতর ২ জনকে বগুড়ায় শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ঈদের আগের রাত দশটার দিকে শেরপুর পৌরশহরের নয়াপাড়া এলাকায় এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

আহতরা হলেন- নয়াপাড়া এলাকার মোঃ রিগ্যান হোসেন, শুকুর আলী, মো. আলম হোসেন, নজরুল ইসলাম, আসাদুল ইসলাম ও মন্টু মিয়া। এরমধ্যে রিগ্যান ও শুকুর আলীর অবস্থা গুরুতর। তাঁদেরকে বগুড়ায় শজিমেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বাকিরা স্থানীয় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে থেকে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, রবিবার সকাল থেকে পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষ্যে শহরের বিভিন্ন ওয়ার্ডের দুস্থদের মাঝে ভিজিএফের চাল বিতরণ করেন পৌর কর্তৃপক্ষ। পরে যারা এসব চাল পেয়েছেন তাদের মধ্যে ৭০০ জনের নিকট থেকে সেখানেই কালোবাজারির মাধ্যমে আলম, সাব্বির ও রিয়াদ নামমাত্র মূল্যে চালগুলো কিনে নেন। পরবর্তীতে চালগুলো রিগ্যান নামের আরেক ব্যবসায়ীর নিকট ৩৪ টাকা কেজি দরে বিক্রি করে দেন তারা। কিন্তু ঘটনার রাতে ব্যবসায়ী রিগ্যান প্রতিকেজি চালে দুই টাকা কমে দাম দিতে চাইলে তাদের মধ্যে বাকবিতণ্ডা শুরু হয়। একপর্যায়ে উভয় পক্ষের লোকজন সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন। এতে ছয়জন আহত হয়েছেন। একপর্যায়ে এই সংঘর্ষ ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে যাওয়ার শঙ্কা দেখা দিলে ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন করা হয় বলে সূত্রটি জানান।

শেরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রেজাউল করিম রেজা এ প্রসঙ্গে বলেন, ঘটনার পরপরই পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। এখন পরিস্থিতি পুলিশের নিয়ন্ত্রণে ও স্বাভাবিক রয়েছে। এছাড়া ওই ঘটনায় এখনো কোনো পক্ষই লিখিত অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে আইন অনুযায়ী পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

মেসেঞ্জার/দিশা