ঢাকা,  শনিবার
১৫ জুন ২০২৪

The Daily Messenger

মালয়েশিয়ায় প্রবাসী অধিকার পরিষদের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপিত

বাপ্পী কুমার দাস, মালয়েশিয়া

প্রকাশিত: ১৪:৩৫, ২০ মে ২০২৪

আপডেট: ১৪:৩৭, ২০ মে ২০২৪

মালয়েশিয়ায় প্রবাসী অধিকার পরিষদের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপিত

ছবি : সৌজন্য

এসো এক হয়, অধিকারের কথা বলি, প্রবাসীদের অধিকার নিয়ে কথা বলার জন্য ৪ বছর আগে প্রতিষ্ঠা হয় বাংলাদেশ প্রবাসী অধিকার পরিষদ। এখন প্রবাসী অধিকার পরিষদের কার্যক্রম চলে বিশ্বের ৪৭টি দেশে। মালয়েশিয়াতে প্রবাসীদের নিয়ে কথা বলার জন্য কাজ করছে দলটি। 

স্থানীয় সময় রোববার (১৯ মে) সন্ধ্যায় কুয়ালালামপুর একটি ৫ তারকা হোটেলে বাংলাদেশ প্রবাসী অধিকার পরিষদ এর ৪র্থ প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী ও নব নির্বাচিত কমিটির পরিচিতি সভা অনুষ্ঠিত হয়। 

আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন মালেয়শিয়া কমিটির নব নির্বাচিত সভাপতি মো. মিথুন, অনুষ্ঠান টি পরিচালনা করেন সংগঠনিরসহ সভাপ্রতি ফয়সাল শেখ, প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন মাহবুব আলম শাহ ( সভাপতি - বাংলাদেশ মালেয়শিয়া চেম্বার অব কমার্স), বিশেষ অতিথি ড. আব্দুল আজিজ (প্রফেসর মোনাশ ইউনিভার্সিটি) অনলাইনে বক্তব্য দেন ইঞ্জিনিয়ার কবির হোসেন (সভাপতি বাংলাদেশ প্রবাসী অধিকার পরিষদ কেন্দ্রীয় সংসদ), এস এম সাফায়েত হোসেন (সাধারণ সম্পাদক বাংলাদেশ প্রবাসী অধিকার পরিষদ কেন্দ্রীয় সংসদ) প্রধান বক্তা নূরুল হক নূরু সাবেক ভিপি ডাকসু, প্রধান উপদেষ্টা বাংলাদেশ প্রবাসী অধিকার পরিষদ ও সভাপতি গণ অধিকার পরিষদ।

অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন, তারেকুর রহমান (সাংগঠনিক সম্পাদক বাংলাদেশ প্রবাসী অধিকার পরিষদ কেন্দ্রীয় সংসদ, ইসমাইল হোসেন (ত্রান ও দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা সম্পাদক কেন্দ্রীয় সংসদ)
মোকাম্মেল হোসেন ( মানবাধিকার সম্পাদক বাংলাদেশ প্রবাসী অধিকার পরিষদ কেন্দ্রীয় সংসদ), এইচ এম হাসান ( সাধারণ সম্পাদক বাংলাদেশ প্রবাসী অধিকার পরিষদ মালেয়শিয়া শাখা), শিমুল শেখ (অর্থ সম্পাদক বাংলাদেশ প্রবাসী অধিকার পরিষদ মালেয়শিয়া শাখা), সজিব হাসান অপু ( যুগ্ন সাংগঠনিক সম্পাদক বাংলাদেশ প্রবাসী অধিকার পরিষদ মালেয়শিয়া শাখা। 

এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন বিভি রাজ্যের প্রবাসী অধিকার পরিষদের নেতাকর্মীরা। অনুষ্ঠানে বক্তব্য দিতে গিয়ে বক্তব্যরা মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশ হাইকমিশন সহ সরকারের কাছে প্রবাসীদের অধিকার ও নানা বিড়ম্বনার কথা তুলে ধরেন। 

অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র কুরআন তেলওয়াত ও জাতীয় সংগীত দিয়ে, শেষ হয় প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর কেক কেটে।

মেসেঞ্জার/দিশা

Advertisement